۞ بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ ۞
অনুবাদকে টিক দিন        


সমগ্র কুরআনে সার্চ করার জন্য আরবি অথবা বাংলা শব্দ দিন...


তথ্য খুঁজুন: যেমনঃ মায়িদা x
সুরা লিস্ট দেখুন

সূরা নাম (Sura Name): �������� �������������� -- At-Takwir -- ������-������������������
আয়াত সংখ্যা: 29
আয়াত আরবি
যখন সূর্যকে গুটিয়ে নেয়া হবে।
[ ������-������������������: 1 ]
اِذَا الشَّمْسُ كُوِّرَتْ۪ۙ﴿١ ﴾
আর নক্ষত্ররাজি যখন পতিত হবে।
[ ������-������������������: 2 ]
وَ اِذَا النُّجُوْمُ انْكَدَرَتْ۪ۙ﴿٢ ﴾
আর পর্বতগুলোকে যখন সঞ্চালিত করা হবে।
[ ������-������������������: 3 ]
وَ اِذَا الْجِبَالُ سُیِّرَتْ۪ۙ﴿٣ ﴾
আর যখন দশমাসের গর্ভবতী উষ্ট্রীগুলো উপেক্ষিত হবে।
[ ������-������������������: 4 ]
وَ اِذَا الْعِشَارُ عُطِّلَتْ۪ۙ﴿٤ ﴾
আর যখন বন্য পশুগুলোকে একত্র করা হবে।
[ ������-������������������: 5 ]
وَ اِذَا الْوُحُوْشُ حُشِرَتْ۪ۙ﴿٥ ﴾
আর যখন সমুদ্রগুলোকে অগ্নিউত্তাল করা হবে।
[ ������-������������������: 6 ]
وَ اِذَا الْبِحَارُ سُجِّرَتْ۪ۙ﴿٦ ﴾
আর যখন আত্মাগুলোকে (সমগোত্রীয়দের সাথে) মিলিয়ে দেয়া হবে।
[ ������-������������������: 7 ]
وَ اِذَا النُّفُوْسُ زُوِّجَتْ۪ۙ﴿٧ ﴾
আর যখন জীবন্ত কবরস্থ কন্যাকে জিজ্ঞাসা করা হবে।
[ ������-������������������: 8 ]
وَ اِذَا الْمَوْءٗدَةُ سُىِٕلَتْ۪ۙ﴿٨ ﴾
কী অপরাধে তাকে হত্যা করা হয়েছে?
[ ������-������������������: 9 ]
بِاَیِّ ذَنْۢبٍ قُتِلَتْۚ﴿٩ ﴾
আর যখন আমলনামাগুলো প্রকাশ করে দেয়া হবে।
[ ������-������������������: 10 ]
وَ اِذَا الصُّحُفُ نُشِرَتْ۪ۙ﴿١٠ ﴾
আর যখন আসমানকে আবরণ মুক্ত করা হবে।
[ ������-������������������: 11 ]
وَ اِذَا السَّمَآءُ كُشِطَتْ۪ۙ﴿١١ ﴾
আর জাহান্নামকে যখন প্রজ্জ্বলিত করা হবে।
[ ������-������������������: 12 ]
وَ اِذَا الْجَحِیْمُ سُعِّرَتْ۪ۙ﴿١٢ ﴾
আর জান্নাতকে যখন নিকটবর্তী করা হবে।
[ ������-������������������: 13 ]
وَ اِذَا الْجَنَّةُ اُزْلِفَتْ۪ۙ﴿١٣ ﴾
তখন প্রত্যেক ব্যক্তিই জানতে পারবে সে কী উপস্থিত করেছে!
[ ������-������������������: 14 ]
عَلِمَتْ نَفْسٌ مَّاۤ اَحْضَرَتْؕ﴿١٤ ﴾
আমি কসম করছি পশ্চাদপসারী নক্ষত্রের।
[ ������-������������������: 15 ]
فَلَاۤ اُقْسِمُ بِالْخُنَّسِۙ﴿١٥ ﴾
যা চলমান, অদৃশ্য।
[ ������-������������������: 16 ]
الْجَوَارِ الْكُنَّسِۙ﴿١٦ ﴾
আর কসম রাতের, যখন তা বিদায় নেয়।
[ ������-������������������: 17 ]
وَ الَّیْلِ اِذَا عَسْعَسَۙ﴿١٧ ﴾
আর কসম প্রভাতের, যখন তা আগমন করে।
[ ������-������������������: 18 ]
وَ الصُّبْحِ اِذَا تَنَفَّسَۙ﴿١٨ ﴾
নিশ্চয় এ কুরআন সম্মানিত রাসূলের* আনিত বাণী।
[ ������-������������������: 19 ]
اِنَّهٗ لَقَوْلُ رَسُوْلٍ كَرِیْمٍۙ﴿١٩ ﴾
যে শক্তিশালী, আরশের মালিকের নিকট মর্যাদাসম্পন্ন।
[ ������-������������������: 20 ]
ذِیْ قُوَّةٍ عِنْدَ ذِی الْعَرْشِ مَكِیْنٍۙ﴿٢٠ ﴾
মান্যবর, সেখানে সে বিশ্বস্ত।
[ ������-������������������: 21 ]
مُّطَاعٍ ثَمَّ اَمِیْنٍؕ﴿٢١ ﴾
আর তোমাদের সাথী* পাগল নয়।
[ ������-������������������: 22 ]
وَ مَا صَاحِبُكُمْ بِمَجْنُوْنٍۚ﴿٢٢ ﴾
আর সে* তাকে** সুস্পষ্ট দিগন্তে দেখেছে।
[ ������-������������������: 23 ]
وَ لَقَدْ رَاٰهُ بِالْاُفُقِ الْمُبِیْنِۚ﴿٢٣ ﴾
আর সে তো গায়েব সম্পর্কে কৃপণ নয়।
[ ������-������������������: 24 ]
وَ مَا هُوَ عَلَی الْغَیْبِ بِضَنِیْنٍۚ﴿٢٤ ﴾
আর তা কোন অভিশপ্ত শয়তানের উক্তি নয়।
[ ������-������������������: 25 ]
وَ مَا هُوَ بِقَوْلِ شَیْطٰنٍ رَّجِیْمٍۙ﴿٢٥ ﴾
সুতরাং তোমরা কোথায় যাচ্ছ?
[ ������-������������������: 26 ]
فَاَیْنَ تَذْهَبُوْنَؕ﴿٢٦ ﴾
এটাতো সৃষ্টিকুলের জন্য উপদেশমাত্র।
[ ������-������������������: 27 ]
اِنْ هُوَ اِلَّا ذِكْرٌ لِّلْعٰلَمِیْنَۙ﴿٢٧ ﴾
যে তোমাদের মধ্যে সরল পথে চলতে চায়, তার জন্য।
[ ������-������������������: 28 ]
لِمَنْ شَآءَ مِنْكُمْ اَنْ یَّسْتَقِیْمَؕ﴿٢٨ ﴾
আর তোমরা ইচ্ছা করতে পার না, যদি না সৃষ্টিকুলের রব আল্লাহ ইচ্ছা করেন।
[ ������-������������������: 29 ]
وَ مَا تَشَآءُوْنَ اِلَّاۤ اَنْ یَّشَآءَ اللّٰهُ رَبُّ الْعٰلَمِیْنَ﴿٢٩ ﴾